সুজি দিয়ে তৈরি করুন মজাদার কাটালি বরফি

সুজির কাটালি বরফি। এটা অনেক্ শক্ত হয় কিন্তু মুখে দেওয়ার সাথে সাথে মিলিয়ে যায়। ফ্রিজ ছাড়াই ৬-৭ দিন রাখা যাবে। বানাতেও খুব অল্প উপকরণ লাগে, সময় ও লাগে কম।

উপকরণঃ
সুজি ২ কাপ

চিনি ২ কাপ
ঘী ২ টেবিল চামচ

আলাচ গুঁড়া পরিমাণ মত
পানি ১/৪ কাপ+১/২ কাপ (দুইবার এ আলাদা আলাদা লাগবে)

প্রণালীঃ প্রথমে প্যান চুলায় মাঝারি আঁচ এ বসাতে হবে। এরপর এতে ১ কাপ সুজি দিয়ে একটু নাড়াচাড়া করে বাকি ১ কাপ সুজি দিয়ে দিতে হবে। এবার এই সুজি ১৫ মিনিট ধরে ভাজতে হবে।

সুজি টা অনবরত নাড়তে হবে নইলে লাল হয়ে যাবে। ১৫ মিনিট ভাজার পর এতে ১ টেবিল চামচ ঘী দিয়ে পুরোটা সুজিতে মিশিয়ে নিতে হবে। মিশে গেলে আরো ১ টেবিল চামচ ঘী দিয়ে আগের মত মিশাতে হবে।

এবার সুজি টা ৬-৭ মিনিট ভাজতে হবে। ঘন ঘন নাড়তে হবে। আস্তে আস্তে লালচে হয়ে যাবে। ৬-৭ মিনিট পর এক কাপ চিনি ভালোভাবে মেশাতে হবে। এরপর আরো এক কাপ দিয়ে মেশাতে হবে।

চিনি না গললে ভয়ের কিছু নেই। চিনিটা সম্পূর্ণ মিশে গেলে এতে ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ পাণি দিয়ে নাড়াচাড়া করতে হবে। এই পাণি মিশে গেলে আরো আধা কাপ পানি দিয়ে দিতে হবে।

এলাচ গুঁড়া টা এই পর্যায়ে দিয়ে দিন। এবার ভালোভাবে নেড়ে পাণি শুকানোর পালা। আস্তে আস্তে পানি শুকাবে। এই ফাঁকে একটা ছড়ানো প্লেট এ ঘী ব্রাশ করে নিন। আর একটা খুন্তি তে ঘী ব্রাশ করে রাখুন।

হালুয়া টা মোটামোটি ঘন হয়ে গেলে নামাতে হবে। কিভাবে বুঝবেন হালুয়া হয়েছে কিনা। খুন্তি তে একটু হালুয়া উঠান। যদি দেখেন হালুয়া টা সহজে পড়ছেনা আর লেগেও থাকছেনা তাহলে বুঝবেন হয়ে গেছে।

এবার ঘী ব্রাশ করা প্লেট এ ঢেলে ঘী ব্রাশ করা খুন্তি দিয়ে চেপে চেপে শেইপ দিন। হাতে ধরবেন না। কারন এটা খুব গরম। এবার হালুয়ার ওপরে একটু ঘী ব্রাশ করে দিন যেন ঠান্ডা হলে ওপরটা ফেটে না যায়।

গরম থাকতে থাকতে সাইজ অনুযায়ী কেটে নিন। কারন ঠান্ডা হলে এটা অনেক শক্ত হয়ে যাবে। চাইলে ওপরে বাদাম কিশমিশ দিয়ে ডেকোরেশন করে দিতে পারেন। সম্পূর্ণ ঠান্ডা হলে পরিবেশন করুন।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *