পেপিনোমেলন ফল, এবার চাষ হচ্ছে বাংলাদেশে

সুস্বাদু ও পুষ্টিগুণে ভরপুর একটি ফল হোল পেপিনোমেলন। এই ফলের ৯৩% জল রয়েছে। এই ফল কাঁচা খাওয়া যায়। বাংলাদেশে প্রথম পেপিনোমেলন ফলের চাষ হচ্ছে রংপুরের মাটিতে। শখের বসে বিদেশ থেকে মাত্র একটি চারা এনে এখন বানিজ্যিক ভাবে চাষ করছেন এএসএম সেলিম। অল্প খরচে বেশি ফলন হওয়ায় ভাল মুনাফার আশাও করছেন তিনি। এ দেশের মাটি পেপিনোমেলন উৎপাদনের উপযোগী বলে জানান রংপুর বিভাগীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

চোখ জুড়ানো সবুজে ছেয়ে থাকা ছোট গাছগুলোকে কিছুটা অচেনা মনে হতে পারে প্রথম দেখায়। হওয়ারই কথা। কারণ প্রথমবারের মতো দেশের মাটিতে পেপিনোমেলন নামের ফলটির চাষাবাদ শুরু হয়েছে উত্তরের জেলা রংপুরে। দেখতে খানিকটা বেগুন কিংবা ডাবের মতো মনে হলেও এটি একটি ফল। যার আদি নিবাস দক্ষিণ আমেরিকার দেশ কলম্বিয়ায়।

রংপুরের পায়রাবন্দ উপজেলার পেশাদার কৃষক সেলিম শখের বসে এই ফলের আবাদ শুরু করেন বছর খানেক আগে। কিন্তু স্থানীয় বাজারে চাহিদা বাড়তে থাকায় তার মনোযোগ এখন বাণিজ্যিক উৎপাদনের দিকে।

সহজ চাষপদ্ধতি ও খরচ কম হওয়ায় এই ফলে লাভের পরিমাণও তুলনামূলক বেশি। এছাড়া সেলিমের সাফল্য দেখে এই ফল চাষে আগ্রহী হচ্ছেন স্থানীয় অন্য কৃষকরাও। ফলে আয় বাড়ছে চারা বিক্রি করেও।

রংপুরের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক জানান, রংপুর অঞ্চলের মাটি উর্বর এবং আবহাওয়া অনুকূল হওয়ায় এখানে পেপিনোমেলন উৎপাদনের সম্ভাবনা দেখছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

ক্যান্সার প্রতিরোধী এন্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ ফলটি শরীরের জন্য খুবই কার্যকরী, এমন দাবি পুষ্টিবিদদের। তাই সুস্বাদু ও মুখরোচক পেপিনোমেলন চাষ, আমাদের দেশে এক সম্ভবনাময়ী ফল বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা ।

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনে “পেপিনো মেলন” ফলের ভূমিকাঃ

High Blood pressure বা উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনে পেপিনো মেলন একটি অসাধারণ ফল ! এতে পরিমানমত পটাসিয়াম থাকে এবং সোডিয়ামের পরিমাণও থাকে কম। এ কারণে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় যারা ভুগছেন তাদের জন্য এই ফলটি মহাঔষধও হতে পারে। পেপিনো মেলন ফল এর প্রধান সুবিধা হ’ল- হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ এমনকি স্ট্রোকের মতো পরিস্থিতি প্রতিরোধে আপনার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করবে। পরিশেষে না বললেই নয় যে- এটি ডায়াবেটিস রোগেও উপকারী ! তাই একে একটি ঔষুধি ফলও বলা যেতে পারে। নিচের লিঙ্ক টিতে রোগ নিয়ন্ত্রনে পেপিনো মেলন সম্পর্কে বহির্বিশ্বের অভিজ্ঞ ডাক্তারদের মতামত উল্যেখ আছে ।

তথ্যসূত্রঃ চ্যানেল ২৪

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *